Load Shedding Paragraph for Class 8, 10 and 12

Here is the Load Shedding Paragraph for Class 8, 10, and 12 with Bangla translation:

Jerin’s English exam will be started from tomorrow. So she was studying very attentively. At that time suddenly everything went dark. What happened? The electricity is gone.

Jerin’s older brother Jewel was ironing clothes, he has a job interview tomorrow. But the power went out just to iron half of the pants. What will happen now?

These scenarios are of our daily lives. Sudden loss of electricity without notice which we know as load shedding. As a result, we have to suffer a lot every day.

The main reasons for load shedding are low power generation and unplanned distribution of electricity.  As a result, we have to face various problems, especially in developing countries like Bangladesh. Everything from homes to mills and factories came to a standstill. Production is disrupted due to lack of electricity. Public life became miserable, especially in summer when it was almost impossible to stay at home without electricity. In summer, without electricity, the village has a somewhat habitable environment, but in urban areas, it is almost impossible.

The suffering of students due to load shedding is even greater. There is a huge loss of students’ learning. The patient has to suffer a lot due to load shedding. Due to the lack of electricity, it is not possible to perform the operation on time, which often results in the death of the patient. If there is no electricity for a long time, the food kept in the fridge rots. The commodities preserved in cold storage get spoiled. Businessmen and farmers faced huge loss. The government must take effective steps to free the country and the nation from the dark chapter of load shedding. In addition to generating electricity as per the demand, proper distribution of electricity has to be ensured. At the same time, we need to be aware of the use of electricity by the general public.

Load Shedding Paragraph for Class 8, 10 & 12 in Bangla

জেরিনের আগামীকাল থেকে ইংরেজী পরীক্ষা। তাই সে খুব মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করছে। এমন সময় হঠাৎ সবকিছু অন্ধকার। কি হল? ইলেক্ট্রিসিটি চলে গেছে।

জেরিনের বড় ভাই জুয়েল কাপড় ইস্ত্রি করছিল, আগামীকাল একটা চাকরির ইন্টার্ভিউ আছে তার। কিন্তু প্যান্ট অর্ধেক ইস্ত্রি করতেই বিদ্যুৎ চলে গেল। এখন কি হবে?

এই চিত্রগুলো আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের। হঠাৎ করে বিনা নোটিশে ইলেক্ট্রিসিটি চলে যাওয়া যাকে আমরা লোডশেডিং নামে চিনি। যার ফলে আমাদের প্রতিদিন অসংখ্য ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

লোডশেডিং -এর প্রধান কারন হচ্ছে চাহিদার তুলনায় কম বিদ্যুৎ উৎপাদন এবং বিদ্যুতের অপরিকল্পিত বিতরণ। এর ফলে নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় বিশেষ করে বাংলাদেশের মত উন্নয়নশীল দেশগুলোতে। বাসাবাড়ি থেকে শুরু করে মিল, কলকারখানা সবকিছু স্থবির হয়ে যায়। বিদ্যুৎ না থাকার কারনে উৎপাদন ব্যবস্থা বাধাগ্রস্থ হয়। জনজীবন দুর্বিষহ হয়ে ওঠে, বিশেষ করে গ্রীষ্মকালে বিদ্যুৎ ছাড়া ঘরে টেকা প্রায় অসম্ভব। গ্রীষ্মকালে বিদ্যুৎ ছাড়া গ্রামে কিছুটা বসবাস উপযোগী পরিবেশ থাকলেও শহর এলাকাতে একদমই অসম্ভব।

লোডশেডিংয়ের কারণে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি আরও বড় আকারের। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার ব্যাপক ক্ষতি হয়। রোগীদের ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়তে হয়। বিদ্যুৎ না থাকলে ঠিক সময়ে অপারেশন করা সম্ভব হয় না, যার ফলে অনেক সময় রোগী মারাও যায়। দীর্ঘক্ষণ বিদ্যুৎ না থাকার ফলে ফ্রিজে রাখা খাবার পচে যায়। কোল্ড স্টোরেজে সংরক্ষিত পণ্যগুলি নষ্ট হয়ে যায়। যার ফলে ক্ষতিগ্রস্থ হয় ব্যবসায়ী এবং কৃষকেরা। লোডশেডিং -এর অন্ধকার অধ্যায় থেকে দেশ ও জাতিকে মুক্ত করতে সরকারকে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে হবে। চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদনের পাশাপাশি বিদ্যুতের সঠিক বণ্টন নিশ্চিত করতে হবে। সেই সাথে আমাদের সাধারণ জনগণের বিদ্যুৎ ব্যবহারের ক্ষেত্রে সচেতন হতে হবে।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
Ads Blocker Image Powered by Code Help Pro
Ads Blocker Detected!!!

We have detected that you are using extensions to block ads. Please disable your ads blocker and refresh the page.

 

আপনার ব্রাউজারে একটি এডব্লকার পাওয়া গিয়েছে। আমাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশের জন্য দয়া করে আপনার এড ব্লকারটি বন্ধ করে পেইজটি রিফ্রেশ করুন। ধন্যবাদ!

Refresh